Connect with us

রূপালী আলো

ধর্ষণের বিচার চাওয়ায় মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হলো মা ও মেয়ের

Published

on

ধর্ষণের বিচার চাওয়ায় মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হলো মা ও মেয়ের

স্বামীর সঙ্গে পরকীয়ার ঘটনা প্রকাশ হয়ে পড়ায় বগুড়ায় এক শ্রমিক লীগ নেতার ক্ষুব্ধ স্ত্রী এবং তার সহযোগীরা এক যুবতী ও তার মাকে বেদম মারপিট করে মাথার চুল ন্যাড়া করে দিয়েছেন।

শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শ্রমিক লীগ নেতার স্ত্রী এবং মা-বোন পলাতক রয়েছেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে স্ত্রীকে না পেয়ে শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

এদিকে শুক্রবার রাতে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী ঘটনাটিকে পরকীয়া বললেও শনিবার এ ঘটনায় ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগে সদর থানায় মামলা করা হয়।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ধর্ষণের ঘটনা ধাপাচাপা দিতে এই মারপিট ও মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

মামলার আসামিরা হলেন বগুড়া শহর শ্রমিক লীগের সভাপতি তুফান সরকার, তার স্ত্রী আশা খাতুন, আশার বড় বোন পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর মারজিয়া হাসান রুমকি ও তার মা রুমী বেগমসহ ১০ জন। শুক্রবার গভীর রাতে বগুড়া সদর থানা পুলিশ শহরের চকসুত্রাপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের মধ্যে চারজনকে গ্রেপ্তার করে। তারা হলেন শহর শ্রমিক লীগের সভাপতি তুফান সরকার, তার সহযোগী আলী আজম দিপু, আতিকুর রহমান ও রুপম হোসেন।

মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বগুড়া শহরের বাদুড়তলা এলাকায় বসবাসকারী এক চা বিক্রেতার মেয়ে শহরের জুবলী ইনস্টিটিউিশন থেকে এবার এসএসসি পাস করে। সে কোনো কলেজে ভর্তি হতে পারেনি। প্রতিবেশী আলী আজম দিপু তাকে শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারের মাধ্যমে সরকারি কলেজে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেয়। একপর্যায়ে দিপু তাকে মোবাইল ফোনে তুফান সরকারের সঙ্গে কথা বলিয়ে দেয়। এরপর তুফান সরকার দিপুর মাধ্যমে ওই ছাত্রীকে চার হাজার টাকা দিয়ে একটি কলেজে ভর্তির জন্য পাঠান। কিন্তু কোনো কারণে ভর্তি হতে না পারলে ছাত্রী বিষয়টি দিপুর মাধ্যমে তুফান সরকারকে জানায়।

গত ১৭ জুলাই তুফান সরকার স্ত্রী-সন্তান বাসায় না থাকার সুযোগে ওই মেয়েকে বাসায় ডেকে আনেন এবং দিনভর তাকে আটকে রেখে কয়েক দফা ধর্ষণ করেন। এতে রক্তক্ষরণজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ে মেয়েটি। পরে তাকে চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখানো হয়। কিন্তু ধর্ষণের ঘটনা মেয়েটির মা জানতে পারেন এবং বিভিন্ন মাধ্যমে তা তুফান সরকারের স্ত্রীর কানে যায়।

শুক্রবার বিকালে তুফান সরকারের স্ত্রী আশা খাতুন, তার বড় বোন পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মারজিয়া হাসান রুমকি এবং তার মা রুমী বেগম ধর্ষিতার বাড়িতে যান। তারা ধর্ষণের ঘটনার বিচার করে দেওয়ার কথা বলে ধর্ষিতা ও তার মাকে কাউন্সিলর রুমকির অফিস চকসুত্রাপুরে নিয়ে আসেন। সেখানে বিচারের নামে মেয়েটিকে যৌনকর্মী আখ্যায়িত করেন তারা এবং মেয়েকে দিয়ে দেহব্যবসা করানোর উল্টো অভিযোগ আনের তার মায়ের বিরুদ্ধে। এরপর তুফান সরকারের কয়েকজন সহযোগী লাঠিপেটা করেন মা ও মেয়েকে।

এতেও তারা ক্ষ্যান্ত না হয়ে নাপিত ডেকে মা-মেয়েকে প্রথমে মাথার চুল কেটে দেন। একপর্যায়ে তুফান সরকারের স্ত্রীর নির্দেশে তাদের মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, ২০ মিনিটের মধ্যে বগুড়া শহর ছেড়ে গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার জন্য রিকশায় তুলে দেওয়া হয়।

ওই অবস্থায় তারা বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে হাসপাতালে গিয়ে মা ও মেয়ের বক্তব্য শুনে রাতেই অভিযান শুরু করে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তুফান সরকারকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর তার তিন সহযোগীকেও গ্রেপ্তার করা হয়। এদিকে ঘটনার পর পরই তুফানের স্ত্রী আশা খাতুন, তার বড় বোন কাউন্সিলর রুমকি এবং তুফানের শাশুড়ি রুমী বেগম আত্মগোপন করেন।

শনিবার এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে তুফান সরকারসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তারকৃত চারজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

অন্য একটি সূত্র জানায়, শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারের সঙ্গে ওই মেয়ের মোবাইলে পরিচয় হয়। এরপর থেকে দুজনের মধ্যে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বেশ কিছুদিন থেকে তাদের সার্বক্ষণিক মোবাইল ফোনে যোগাযোগ হতো। এই বিষয়টি গোপনে জানতে পারেন তুফানের স্ত্রী আশা খাতুন। তিনি মেয়েটির বাড়িঘরের খোঁজখবর নিয়ে শুক্রবার রাতে পৌর কাউন্সিলর বোন ও মায়ের সহযোগিতায় সেখানে যান।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আমিনুল ইসলাম জানান, মেয়েটির অবস্থা কিছুটা খারাপ। তবে তার মায়ের অবস্থা সংকটমুক্ত। চিকিৎসা চলছে।

একই হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের (মহিলা) ৬নং ওয়ার্ডের ৩২৫নং কক্ষের ১নং বেডে শুয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে নির্যাতনের শিকার মেয়েটি জানায়, তার ওপর যে পাশবিক ও অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে, তার বিচার চায় সে। বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে তাদের ওপর এই হামলা চালানো হয়েছে বলেও অভিযোগ করে সে।

এ ব্যাপারে জানতে অভিযুক্তদের কারো সঙ্গেই মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

Advertisement বিনোদনসহ যেকোনো বিষয় নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও- rupalialo24x7@gmail.com
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

রোদেলা জান্নাত (Rodela Jannat)। ছবি : ফেসবুক
ঢালিউড3 weeks ago

শাকিব খানের নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত, কে এই রোদেলা : অনুসন্ধানী প্রতিবেদন

রঙ্গন হৃদ্য (Rangan riddo)। ছবি : সংগৃহীত
অন্যান্য3 weeks ago

ভাইরাল রঙ্গন হৃদ্যকে নিয়ে এবার সমালোচনার ঝড়

পূজা চেরি। ছবি : সংগৃহীত
ঢালিউড4 weeks ago

শাকিব খানেও আপত্তি নেই পূজা চেরির

শাকিব খানকে পেয়ে যা বললেন নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত
ঢালিউড3 weeks ago

শাকিব খানকে পেয়ে যা বললেন নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত

আয়েশা আহমেদ
অন্যান্য2 weeks ago

আয়েশা আহমেদের আবারও আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান প্রতিযোগিতায় সাফল্য

শাকিব খান ও রোদেলা জান্নাত। ছবি : সংগৃহীত
ঘটনা রটনা3 weeks ago

বুবলীর পর এবার সংবাদ পাঠিকা রোদেলা জান্নাতকে নায়িকা বানাচ্ছেন শাকিব খান

পায়েল চক্রবর্তী
টলিউড3 weeks ago

টালিউড অভিনেত্রী পায়েল চক্রবর্তীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ঢালিউড3 weeks ago

এক হচ্ছেন শাকিব খান-নুসরাত ফারিয়া

শিনা চৌহান
অন্যান্য4 weeks ago

শিনা এখন ঢাকায়

অঞ্জু ঘোষ। ছবি : সংগৃহীত
ঢালিউড3 weeks ago

যে কারণে অবশেষে ঢাকায় ফিরলেন চিত্রনায়িকা অঞ্জু ঘোষ

সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : তাহমিনা সানি
নির্বাহী সম্পাদক : এ বাকের
প্রকাশক : রামশংকর দেবনাথ
বিভাস প্রকাশনা কর্তৃক ৬৮-৬৯ প্যারীদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০ থেকে প্রকাশিত।
ফোন : +88 01687 064507
ই-মেইল : rupalialo24x7@gmail.com
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রূপালীআলো.কম