Connect with us

রূপালী আলো

জাতিসংঘ নেতৃত্বের ব্যর্থতার জন্যই রোহিঙ্গাদের নির্যাতন

Published

on

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর জ্বালিয়ে দেওয়া একটি রোহিঙ্গা জনপদ। ছবি: সংগৃহীত
মিয়ানমার সেনাবাহিনীর জ্বালিয়ে দেওয়া একটি রোহিঙ্গা জনপদ। ছবি: সংগৃহীত

এ কি ‘সর্ষের মধ্যেই ভূত’? যে জাতিসংঘ মিয়ানমারের রাখাইনে স্থানীয় সেনাবাহিনীর রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযানকে ‘জাতিগত নিধনযজ্ঞ’ বলে আখ্যা দিয়েছে, সেই জাতিসংঘেরই দায়িত্বরত নেতৃত্ব নাকি এই ভয়াবহ সংকটের বিষয়টি চাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছে।

জাতিসংঘেরই একজন সাবেক শীর্ষ কর্মকর্তা, কয়েকজন ত্রাণকর্মী ও স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে তৈরি করা এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক একটি সংবাদমাধ্যম। সূত্রগুলো বলছে, খোদ মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের মিশন প্রধানই মানবাধিকার উপদেষ্টাদের ‘স্পর্শকাতর রোহিঙ্গা এলাকায়’ পরিদর্শনে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন।

ওই সংবাদমাধ্যমটি এই অভিযোগ যাচাইয়ে যোগাযোগ করলে জাতিসংঘের মিয়ানমার মিশন তা ‘পুরোপুরি অস্বীকার’ করে।

কিন্তু মিয়ানমারের ভেতরের ও বাইরের সূত্রগুলো সংবাদমাধ্যমটিকে বলছে, এবার নতুন করে সহিংসতা ছড়ানোর চার বছর আগে রাখাইনে মানবিক সংকট তৈরি হলে জাতিসংঘ কান্ট্রি টিমের (ইউএনসিটি) প্রধান রেনাতা লক-ডেসালিয়েন সংকটটি সুরাহার প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়ান।

কানাডিয়ান ওই কূটনীতিক সেসময় প্রথমত, রোহিঙ্গা অধ্যুষিত স্পর্শকাতর এলাকায় প্রবেশে মানবাধিকার নেতৃত্বকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন; দ্বিতীয়ত, রোহিঙ্গাদের পক্ষে গণপ্রচারণা বন্ধের চেষ্টা করেন এবং তৃতীয়ত, সেসময়ের সংঘাতের ধারাবাহিকতা ‘জাতিগত নিধনযজ্ঞে’ পরিণত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশকারীদের কোণঠাসা করে ফেলেন, এমনকি অনেককে চাকরিচ্যুতও করে ফেলেন।

মিয়ানমারে ইউএনসিটি প্রধানের কার্যালয়ের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করা ক্যারোলিন ভ্যান্ডেনাবিলে নামে এক ত্রাণকর্মী জানান, তিনি চার বছর আগেই জাতিগত নিধনযজ্ঞের সংকেত দেখতে পেয়েছিলেন। ১৯৯৩ সালের শেষ থেকে ১৯৯৪ এর শুরু পর্যন্ত রুয়ান্ডায় গণহত্যার সময় সেখানে দায়িত্ব পালন করেন এই নারী ত্রাণকর্মী। সেই অভিজ্ঞতা থেকে ক্যারোলিন জানান, মিয়ানমারে পৌঁছানোর পরই রুয়ান্ডার মতোই উদ্বেগজনক আলামত দেখা যায়।

এই ত্রাণকর্মী বলেন, আমি তখন রাখাইন ও রোহিঙ্গাদের বিষয়ে একদল বিদেশি ও বার্মিজ ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা বলছিলাম। এক বার্মিজ আমাকে হতবাক করে বললো, ‘এই রোহিঙ্গা কুত্তাদের মেরে ফেলা উচিত’।

Leave a comment

Facebook

মাসুমা রহমান নাবিলা (Masuma Rahman Nabila)। ছবি : সংগৃহীত
ঘটনা রটনা3 months ago

‘আয়নাবাজি’র নায়িকা মাসুমা রহমান নাবিলার বিয়ে ২৬ এপ্রিল

‘মিথ্যে’-র একটি দৃশ্যে সৌমন বোস ও পায়েল দেব (Souman Bose and Payel Deb in Mithye)
অন্যান্য3 months ago

বৃষ্টির রাতে বয়ফ্রেন্ড মানেই রোম্যান্টিক?

Bonny Sengupta and Ritwika Sen (ঋত্বিকা ও বনি। ছবি: ইউটিউব থেকে)
টলিউড3 months ago

বনি-ঋত্বিকার নতুন ছবির গান একদিনেই দু’লক্ষ

লাভ গেম-এর পর ঝড় তুলেছে ডলির মাইন্ড গেম (ভিডিও)
অন্যান্য3 months ago

লাভ গেম-এর পর ঝড় তুলেছে ডলির মাইন্ড গেম (ভিডিও)

ভিডিও4 months ago

সেলফির কুফল নিয়ে একটি দেখার মতো ভারতীয় শর্টফিল্ম (ভিডিও)

ঘটনা রটনা5 months ago

ইউটিউবে ঝড় তুলেছে যে ডেন্স (ভিডিও)

ওমর সানি এবং তিথির কণ্ঠে মাহফুজ ইমরানের ‌'কথার কথা' (প্রমো)
সঙ্গীত6 months ago

ওমর সানি এবং তিথির কণ্ঠে মাহফুজ ইমরানের ‌’কথার কথা’ (প্রমো)

সালমা কিবরিয়া ও শাদমান কিবরিয়া
সঙ্গীত6 months ago

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান গাইলেন সালমা কিবরিয়া ও শাদমান কিবরিয়া

মাহিমা চৌধুরী (Mahima Chaudhry)। ছবি : ইন্টারনেট
ফিচার7 months ago

এই বলিউড নায়িকা কেন হারিয়ে গেলেন?

'সেক্সি মুভস না করে বরং পোশাক ছিঁড়ে ক্লিভেজ দেখাও'
বলিউড7 months ago

‘সেক্সি মুভস না করে বরং পোশাক ছিঁড়ে ক্লিভেজ দেখাও’

সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : তাহমিনা সানি
প্রকাশক : রামশংকর দেবনাথ
বিভাস প্রকাশনা কর্তৃক ৬৮-৬৯ প্যারীদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০ থেকে প্রকাশিত।
ফোন : +88 01687 064507
ই-মেইল : rupalialo24x7@gmail.com
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রূপালীআলো.কম