Connect with us

কবিতা

মাহবুব মিত্র-এর গুচ্ছ কবিতা

Published

on

মাহবুব মিত্র-এর গুচ্ছ কবিতা

ঈশ্বর-পুত্রের প্রতীক্ষায়

গাছের ডালগুলো কেটে দাও, কেটে দেওয়া দরকার
ডালের হাত ধরে বেয়ে-বেয়ে নেমে আসে আঁধার
আমি ছিলাম তন্দ্রাচ্ছন্ন, পাখিরাও উড়ে গেলো
যেমন করে শিশুর পাল সন্ধ্যা হলে ঘরে ফেরে, অতঃপর
জোনাকিরা নৃত্য করে দিন ও রাতের ছায়াপথে, আলো-আঁধারের ছায়ারেখায়;

গাছটির ডাল বেয়ে জানালার গ্রিল ধরে
আমার ঘরে প্রবেশ করে দু’টি আদিম মানব
চেয়ে দেখি ঈশ্বর -পুত্রদ্বয় ঠিক আমার মতো কালো
তবুও চোখে জ্বলছে আদিম গুহার আলো
ঠিক যেনো আদম-হাওয়ার গৃহের মতোন;

জানালার গ্রিলে হাত রাখতেই ধরে ফেলি
ঈশ্বর-পুত্রের তুলতুলে নরোম হাত, স্পর্শ করি আঙ্গুলের ডগা
অনায়াসেই নেমে আসে বিকেলের সূর্য আমার ঘরে ঈশ্বর-পুত্রের মতো,
তথাপি আমি তাকে চুম্বন করি মাঝরাতের চাঁদ যেমন চুম্বন করে
গভীর নির্জনে আমার ঘরের অভিমানী ঝুলানো কার্নিশ;

তারপর আদম-হাওয়া মুহূর্তে উড়ে গেলো অজানায় আদিম-প্রহরে
নিমেষেই বন্ধ হয়ে এলো আমার অতৃপ্ত-তৃষ্ণার্ত-জ্বলন্ত চোখের পাতা,
মানুষেরা বসে আছে সবাই যার-যার নিজম্ব ভুল আঙ্গিনায়
লাল-নীল-সবুজ-হলুদ পাখিরা উড়ে বেড়ায় অন্ধকার আদিগন্ত-আকাশ-সীমান্ত…
আমি এখনো বসে আছি পৃথিবীর হেলানো পাটাতনে ঈশ্বর-পুত্রের প্রতীক্ষায়।

 

(পুনশ্চ : কবিতাটির উৎস একটি স্বপ্নের ভগ্নাংশ।)

 

 

পাথরের কান্না পাথরের কলরব

 

সারা-দিন-রাত আমার সঙ্গে খেলা করে বিড়াল-কুকুরেরা,
জানালায় উঁকি দিয়ে দেখে নেয় রোজ-রোজ
পিতা-মাতার মতো সন্তানের প্রিয় মুখ;
গৃহহীন উদ্বাস্তু শিশুর মতো শুয়ে থাকে
বাড়ির দীর্ণ-শীর্ণ ফটকের পাশে যেনো দীর্ঘতর একটি ছায়া
দোল খায় পাহাড়-সমুদ্রের শূন্যতার প্রান্তিক সীমানায়-

রোজ-রোজ খেলা করে আমার সাথে প্রেমিকার অদৃশ্য ছায়া
যেনো বাবার সুদূর শিকারের জংধরা বর্শা চেয়ে থাকে জলের গভীরে
এখানে ওখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে-
রক্তের দাগ, কামের চিহ্ন, চুম্বনের উষ্ণতা, সঙ্গমের দৃশ্য,
শব্দের হাহাকার, জন্মের চিৎকার, পাথরের কান্না, সাঁতারের চিত্রকল্প…
সমুদ্রের পাড়ে নিশীত রাতে শোনা যায় প্রাচীন পাথরের কলরব;

প্রতিনিয়ত স্বপ্নের ভিতর উঁকি দেয় :
একটি ষাঁড়, একটি নীলকণ্ঠ পাখি, একটি পাথর-ছবি
একটি জীর্ণ ছবির ছায়া, একটি বিবর্ণ-কান্ত-স্নান মুখ, একজোড়া শান্ত-স্থির চোখ
স্পর্শ করে আমার উত্তপ্ত কপাল, নির্ঘুম বিদগ্ধ মুখ, ঘামে ভেজা অস্থির শরীর
আমি শিউরে উঠি অনভ্যস্ত কিশোর-কুমারীর মতো মাতাল স্রোতের ঘূর্ণিতে
মাটিতে পা রেখে চোখ মেলে দেখি এ-তো আমারই স্বর্গভূমি;

শূন্যে-মহাশূন্যে উড়ে বেড়ায় শঙ্খচিল, মেঘপরী, নীল ঘোড়া
বাতাসে-বাতাসে ভেসে যায় কামের গন্ধম, পাখির পালক, ফুলের পরাগ
পাহাড়ে-পাহাড়ে জমা আছে নীল পাথরের কান্না লাল পাথরের কলরব
পুকুরে-সরোবরে ক্ষুদ্র-ক্ষুদ্র প্রাণের আলোড়ন, পাতিহাঁসের অবিরাম ডুবসাঁতার
আঙ্গিনায়-আঙ্গিনায় আগাছার মহোৎসব, নীল ভ্রমরের অব্যক্ত কান্না, শিস দিয়ে যায়
বিষধর সবুজ সাপ; শরীরের মাটিতে জন্ম নেবে বেড়ে উঠবে হাড়ের গোলাপ।

 

 

 

পৃথিবীর প্রাচীন কপাট

অসমাপ্ত রাত্রির গা বেয়ে নেমে আসে
তুমুল হাহাকার, দীর্ঘ-দীর্ঘতর নিঃশ্বাস
তোমার গাঢ় চুম্বনগুলো জমা হয়
শিয়রের পাশে, বেদনার আঙ্গিনায়
অবিরাম খেলা করে বসন্তের কোকিল
মাঝে-মধ্যে ডেকে ওঠে কার্তিকের ডাহুক-গাঙচিল;

তুমি এলোমেলো হাওয়ার মতো
বৃষ্টির জলে মিশে গিয়ে
তুলে আনো সুরের নিক্কন-কিন্নরী
শরীর ভেঙ্গে-ভেঙ্গে মিশে যায় কামনার জলে,
প্রচণ্ড উত্তাপে দগ্ধ হয়ে জলে-স্থলে-অন্তরীক্ষে
সারা অঙ্গ অঙ্গার হয় প্রেম-অনলে;

অপরিপক্কতার-অপূর্ণতার গল্পের ভিতর
আমাদের অসমাপ্ত গল্পের কান্না
ছুঁয়ে যায় প্রেমের গোপন অলিন্দ;
তবুও আমরা জেগে থাকি সারারাত মুঠো বদ্ধ করে-
কখনো-সখনো চোখ বন্ধ হয়ে আসে অনিমেষ আঁধারে,
আবার কেঁপে উঠি অনিশ্চিত প্রহরে-প্রহরে সমুদ্রের তুমুল গর্জনে;

কামের গন্ধে জেগে ওঠে উদ্বাস্তু-মাতাল কুকুর
রাতের তৃষ্ণার্ত প্রহর ছুঁয়ে-ছুঁয়ে
বিদ্ধ হয় কুমারী নদী-শিহরিত হয় কালের পুতুল
তীক্ষ্ণ-বর্শার দংশনে নীল হয় বুড়ি চাঁদ;
কুকুরীর শীৎকারে-শীৎকারে খোলে যায়
পৃথিবীর সব ক’টি প্রাচীন কপাট…

 

 

 

বৃষ্টি থেকে জন্ম নিয়ো

রান্নাঘরের বাতিটি জ¦লে আছে
যেনো শশ্মানের নীরবতা, উড়ন্ত পাখির দীর্ঘশ্বাস-
গুহার পাশে যেনো ফুটে আছে
আলো-ফুল, আলো-পাখি হয়ে
প্রদক্ষিণ করছে তামাম পৃথিবীর
এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত;

আমি বসে আছি আমরা বসে থাকি
এই অবেলায়-প্রহর-সন্ধ্যায়
আড়মোড়া দিয়ে যেমন পড়ে আছে
বেওয়ারিশ নদীর বাঁক,
আলোপাখির চোখ থেকে
ঠিকরে বেরুচ্ছে ধনুকের তীর।

গুহাসঙ্গম শেষে শব্দ এলো কানে-
বিকট এক শব্দ পাহাড় ভাঙ্গার
ধীরে-ধীরে চোখ রাখি
সময়ের শরীরে বাতাসের কম্পনে
বাতিটি তখনো জ¦লছে আমার
উদ্ধত-একরোখা-বিনম্র চেতনাকে শাসিয়ে-কাঁপিয়ে,

গুহার মুখে দাঁড়িয়ে আছে
পৃথিবীর সমান বয়সী বাস্তুসাপ;
সূর্যের আলো তখনো স্পর্শ করেনি
আমাদের কবরের পাদদেশ ফটকের পিঠ
তারপর ধীরে-ধীরে কেঁপে-কেঁপে
খোলে গেলো সবক’টি সদর কপাট।

রান্নাঘরে বাতিটি জ্বলছে  অবিরাম-
চেতনাহীন মাটি ফুঁড়ে জন্মাচ্ছে ঘাসফুল অবিরত
আমার আঙুলের ডগা থেকে বেরুচ্ছে ফিনিক্স পাখির মতো
কবিতার শব্দাবলী-আলোর মিছিল-পাখির কোরাস,
রান্নাঘর হতে সমুদ্রবিলাস সাগরসঙ্গম-পাখিটি উড়ছে
গুহা থেকে পাহাড়ের শীর্ষবিন্দু ছুঁয়ে-ছুঁয়ে-

 

 

আমি উড়ে বেড়াই আলো-পাখির দিগন্ত-বিস্তৃত মাঠ-
তোমরা তখনো স্নানরত মধ্যরাতের বৃষ্টিতে;
পতঙ্গের পাল মাতাল বাতাসে করছে ওড়াউড়ি অবেলায়-
তাহাদের চোখে-মুখে আঁধারের ছবি আঁকা
বাতিটি জ্বলছে আমার কবরের সিথানে, বৃষ্টি থেকে জন্ম নিয়ো
হে আমার আলোর ফুল আগামীর ভবিষ্যৎ পিতা স্বপ্নের নেতা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Advertisement বিনোদনসহ যেকোনো বিষয় নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও- rupalialo24x7@gmail.com
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

রোদেলা জান্নাত (Rodela Jannat)। ছবি : ফেসবুক
ঢালিউড3 weeks ago

শাকিব খানের নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত, কে এই রোদেলা : অনুসন্ধানী প্রতিবেদন

রঙ্গন হৃদ্য (Rangan riddo)। ছবি : সংগৃহীত
অন্যান্য3 weeks ago

ভাইরাল রঙ্গন হৃদ্যকে নিয়ে এবার সমালোচনার ঝড়

পূজা চেরি। ছবি : সংগৃহীত
ঢালিউড4 weeks ago

শাকিব খানেও আপত্তি নেই পূজা চেরির

শাকিব খানকে পেয়ে যা বললেন নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত
ঢালিউড3 weeks ago

শাকিব খানকে পেয়ে যা বললেন নতুন নায়িকা রোদেলা জান্নাত

আয়েশা আহমেদ
অন্যান্য2 weeks ago

আয়েশা আহমেদের আবারও আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান প্রতিযোগিতায় সাফল্য

শাকিব খান ও রোদেলা জান্নাত। ছবি : সংগৃহীত
ঘটনা রটনা3 weeks ago

বুবলীর পর এবার সংবাদ পাঠিকা রোদেলা জান্নাতকে নায়িকা বানাচ্ছেন শাকিব খান

পায়েল চক্রবর্তী
টলিউড3 weeks ago

টালিউড অভিনেত্রী পায়েল চক্রবর্তীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ঢালিউড3 weeks ago

এক হচ্ছেন শাকিব খান-নুসরাত ফারিয়া

শিনা চৌহান
অন্যান্য4 weeks ago

শিনা এখন ঢাকায়

অঞ্জু ঘোষ। ছবি : সংগৃহীত
ঢালিউড3 weeks ago

যে কারণে অবশেষে ঢাকায় ফিরলেন চিত্রনায়িকা অঞ্জু ঘোষ

সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : তাহমিনা সানি
নির্বাহী সম্পাদক : এ বাকের
প্রকাশক : রামশংকর দেবনাথ
বিভাস প্রকাশনা কর্তৃক ৬৮-৬৯ প্যারীদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০ থেকে প্রকাশিত।
ফোন : +88 01687 064507
ই-মেইল : rupalialo24x7@gmail.com
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রূপালীআলো.কম